চুলের বৃদ্ধির জন্য পেঁয়াজের রসের উপকারিতা

You are currently viewing চুলের বৃদ্ধির জন্য পেঁয়াজের রসের উপকারিতা
Image by Beverly Buckley from Pixabay

চুলের বৃদ্ধির জন্য পেঁয়াজের রস ব্যবহার অদ্ভুত শোনাতে পারে, কিন্তু এটি কাজ করে। শিশু বিকাশ একটি প্রক্রিয়া যা সময় এবং উত্সর্গ নেয়। যখন আপনার চুল গজাতে এত বেশি সময় লাগে এবং আপনি এটি কাটা এড়াতে পারবেন না, তখন হাল ছেড়ে দেওয়ার তাগিদে লড়াই করা কঠিন। আপনার চুল গজাতে অনেক ধৈর্য লাগে, তবে এটি ধীর হওয়া উচিত নয়। আপনার রুটিনে পেঁয়াজ অন্তর্ভুক্ত করলে চুলের আয়তন দ্রুত বৃদ্ধি পেতে পারে। তবে আগে দেখে নেওয়া যাক পেঁয়াজ কীভাবে আপনার চুলে পুষ্টি যোগায়। পড়তে!

পেঁয়াজের রস খাওয়া চুলের বৃদ্ধি বাড়ানো এবং চুলের পুনঃবৃদ্ধি প্রচার করার একটি নিশ্চিত উপায়। চুলের বৃদ্ধির জন্য পেঁয়াজের রস আগে এবং পরে ফলাফল সহ ব্যবহারকারীদের কাছ থেকে অনলাইনে ভাল পর্যালোচনা পেয়েছে। এই উপাদানটি এত কার্যকর হওয়ার কয়েকটি সম্ভাব্য কারণ রয়েছে:

  • পেঁয়াজের রস একটি অ্যান্টিঅক্সিডেন্ট এনজাইম ক্যাটালেসের মাত্রা বাড়িয়ে চুলের বৃদ্ধিকে উৎসাহিত করে। এই এনজাইম হাইড্রোজেন পারক্সাইড ভেঙ্গে চুলের বৃদ্ধি চক্রকে অপ্টিমাইজ করার সময় সাহায্য করে।
  • এটি সালফার-সমৃদ্ধ উপাদানগুলির সাথে আপনার চুলের ফলিকলগুলিকে পুষ্ট করতে সহায়তা করে। সালফার আপনার চুলের ফলিকলগুলির পুনর্জন্মের জন্য প্রয়োজনীয়।
    উচ্চ সালফার উপাদান চুল পাতলা এবং ভাঙ্গা কমাতে সাহায্য করে।
  • অ্যান্টিঅক্সিডেন্ট অকাল ধূসর হওয়া এবং বিলম্বিত ধূসর হওয়া প্রতিরোধে সহায়তা করে।
    পেঁয়াজের সমৃদ্ধ অ্যান্টিব্যাকটেরিয়াল বৈশিষ্ট্য আপনার মাথার ত্বককে সুস্থ রাখতে এবং সংক্রমণ মুক্ত রাখতে সাহায্য করে, চুলের বৃদ্ধি রোধ করে। এই সম্পত্তি খুশকি নিয়ন্ত্রণে সাহায্য করে।
  • পেঁয়াজের রস আপনার মাথার ত্বককে উদ্দীপিত করে এবং রক্ত সঞ্চালন উন্নত করে, ফলিকলগুলিকে ভালভাবে পুষ্ট করে।

পেঁয়াজের রসের উপকারিতা কি?
পেঁয়াজ রান্না ছাড়াও চুল থেকে হার্ট পর্যন্ত অনেক উপকারিতা রয়েছে। এটি চুলের পুষ্টি জোগাতে জাদুকরী কাজ করে। চুলের জন্য পেঁয়াজের রসের কিছু প্রধান উপকারিতা নিচে দেওয়া হল-

চুল পড়া বন্ধ করুন
সালফার থাকার কারণে চুল পড়া রোধে পেঁয়াজের রস খুবই কার্যকরী। এটি আপনার চুল মজবুত করার একটি প্রধান উপাদান। সালফার কোলাজেন উৎপাদন বাড়াতে সাহায্য করতে পারে যা আরও চুলের ফলিকল এবং পরিষ্কার ত্বক তৈরি করতে সাহায্য করে। এটাও বিশ্বাস করা হয় যে পেঁয়াজের রস দিয়ে ম্যাসাজ করলে মাথার ত্বকে রক্ত ​​সঞ্চালন বাড়ে, যার ফলে চুলের বৃদ্ধি ভালো হয়।

চুলের অকাল পাকা হওয়া রোধ করুন
Image by Pexels from Pixabay

চুলের অকাল পাকা হওয়া রোধ করুন
পেঁয়াজের রসে ক্যাটালেজ নামক অ্যান্টিঅক্সিডেন্ট যৌগ থাকে যা চুলের গোড়ায় হাইড্রোজেন পারক্সাইড কমাতে সাহায্য করে। হাইড্রোজেন পারক্সাইড চুল ধূসর হতে পারে, তাই আপনি এর মাত্রা কমিয়ে ধূসর হওয়া প্রতিরোধ করতে পারেন।

শুষ্ক চুলকে পুষ্টি ও ময়শ্চারাইজ করতে
পেঁয়াজের রসে বিভিন্ন মাইক্রোনিউট্রিয়েন্ট থাকার কারণে এটি আপনার শুষ্ক, প্রাণহীন চুলকে পুষ্ট করে। এতে রয়েছে ফ্ল্যাভোনয়েড, অ্যান্টিঅক্সিডেন্ট, অ্যান্টি-ইনফ্লেমেটরি বৈশিষ্ট্য যা চুলের গোড়ায় রক্ত ​​সরবরাহ বাড়ায়।

খুশকি থেকে মুক্তি পান
খুশকি সবচেয়ে সাধারণ এবং ঝামেলাপূর্ণ সমস্যা। খুশকি একটি ছত্রাকের সংক্রমণের কারণে হতে পারে যা কখনও কখনও ব্যাকটেরিয়া সংক্রমণের সাথে যুক্ত হয়। খুশকি আপনার মাথার ত্বক শুষ্ক এবং চুলকানি করতে পারে। পেঁয়াজের রসে অ্যান্টি-ফাঙ্গাল এবং অ্যান্টি-মাইক্রোবিয়াল বৈশিষ্ট্য রয়েছে যা খুশকি দূর করতে সাহায্য করে।

শুষ্ক এবং চুলকানিযুক্ত মাথার ত্বকের চিকিত্সা করুন
পেঁয়াজের রসের অ্যান্টি-ইনফ্লেমেটরি বৈশিষ্ট্য শুষ্ক এবং চুলকানি মাথার ত্বককে প্রশমিত করতে পারে। এটি ত্বকে রক্তের সরবরাহ বাড়ায় যা মাথার ত্বককে ময়শ্চারাইজ করতে সাহায্য করে।

পেঁয়াজের রসের পার্শ্বপ্রতিক্রিয়া

এটি ব্যবহার করার আগে প্যাচটি পরীক্ষা করা সর্বদা ভাল। আপনার যদি পেঁয়াজ থেকে অ্যালার্জি থাকে তবে এই ঘরোয়া প্রতিকারটি ব্যবহার করবেন না। আপনার যদি সংবেদনশীল ত্বক থাকে তবে আপনি ত্বকের জ্বালা এবং লালচে ভুগতে পারেন।

Leave a Reply