বাঁধাকপি খাওয়ার উপকারিতা:

You are currently viewing বাঁধাকপি খাওয়ার উপকারিতা:
বাঁধাকপি উপকারিতা

ভিটামিন এবং খনিজ সমৃদ্ধ শাকসবজিগুলির মধ্যে একটি হল বাঁধাকপি। এটি পূর্বের ভূমধ্যসাগর এবং এশিয়া মাইনার থেকে উদ্ভূত শাক-সব্জীগুলির ব্রোকলি এবং ফুলকপি পরিবারের অন্তর্ভুক্ত। এই স্বাস্থ্যকর শাকসবজিটি বিভিন্ন বর্ণ যেমন বেগুনি, লাল, সাদা এবং সবুজ রঙে আসতে বলে। বর্তমানে এটি বিশ্বজুড়ে অনেকগুলি খাবারে ব্যবহৃত হচ্ছে কারণ এটির বহুবিধ স্বাস্থ্য বেনিফিট।

এই শাকগুলি ঠিক কীটিকে স্বাস্থ্যকর খাবার হিসাবে পরিণত করে তা বোঝার আগে, এখানে কয়েকটি বাঁধাকপি সম্পর্কে আপনার জানতে হবে, 

বাঁধাকপি একটি সমস্ত মৌসুমের শাকসব্জী, যার অর্থ এটি সারা বছর বাজারে পাওয়া যায়। এই সবজি বিভিন্ন ধরণের যেমন লাল, সবুজ, সাদা এবং বেগুনি রঙে আসে।

এটি ফাইবার, ভিটামিন সি, ভিটামিন কে এর একটি ভাল উত্স এবং স্যাচুরেটেড ফ্যাট কম।  বাঁধাকপির রস পেটের ব্যথা এবং অন্ত্রের আলসার নিরাময় করে।

এই শাকযুক্ত ক্যালরি কম এবং এটি আপনার ওজন হ্রাস ডায়েটে খাবার যুক্ত করতে হবে।

বাঁধাকপি ভাল হজমে সহায়তা করে কারণ এই উদ্ভিদটি কোলন এবং পাচনতন্ত্রকে স্বাস্থ্যকর অবস্থায় রাখে।

স্বাস্থ্যের জন্য বাঁধাকপি খাওয়ার উপকারিতা:

সবাই নিশ্চিতভাবে জানে যে বাঁধাকপি খাওয়া আপনাকে একাধিক উপায়ে উপকৃত করতে পারে তবে কীভাবে এবং এই সবজির উপাদানগুলি কী কী তা প্রশ্নগুলি এটি আপনার নিয়মিত ডায়েটে অবশ্যই খাদ্য যুক্ত করে। এখানে বাঁধাকপি খাওয়ার কিছু স্বাস্থ্য উপকারিতা রয়েছে।

ক্যান্সার প্রতিরোধ করে:
সালফোরাফেইন এমন একটি উপাদান যা বাঁধাকপিতে পাওয়া যায় যা আপনার দেহে ক্যান্সার বিরোধী প্রভাব বাড়িয়ে তোলে। তবে বাঁধাকপির আরও অনেক বৈশিষ্ট্য রয়েছে যা ক্যান্সার প্রতিরোধে বলা হয়। এই বৈশিষ্ট্যগুলির মধ্যে কয়েকটিতে ডাইন্ডোলিলেমেথেন (ডিআইএম), সিনিগ্রিন, লুপোল এবং ইন্ডোল 3- কার্বিনল (আই 3 সি) অন্তর্ভুক্ত রয়েছে। আপনাকে যা করতে হবে তা হ’ল কেবল আপনার প্রতিদিনের খাবারে কিছু বাঁধাকপি যুক্ত করা এবং নিজেকে ক্যান্সার থেকে রক্ষা করা।

আপনার অনাক্রম্যতা বাড়ায়:
বাঁধাকপি আপনার অনাক্রম্যতা বাড়াতে বলা হয় কারণ এটিতে ভিটামিন সি এর উচ্চ উত্স রয়েছে আপনার কিছুটা কাজ সম্পাদনের জন্য আপনার প্রতিরোধ ব্যবস্থাতে ভিটামিন সি দরকার। তবে আপনার যদি কম ভিটামিন সি থাকে তবে আপনার দেহে রোগজীবাণুগুলির বিরুদ্ধে কম প্রতিরোধ ক্ষমতা থাকতে পারে যা আপনার প্রতিরোধ ক্ষমতা দুর্বল করতে পারে। সহজ কথায়, ভিটামিন সি সেই র‌্যাডিকেলগুলি বের করে দেয় যা আপনাকে কোনও রোগের ঝুঁকিতে ফেলতে পারে।

অ্যান্টি-ইনফ্ল্যামেটরি বৈশিষ্ট্য:
বাঁধাকপি অ্যামিনো অ্যাসিডের একটি সমৃদ্ধ উত্স রয়েছে যা প্রদাহের সাথে লড়াই করতে সহায়তা করে। অ্যামিনো অ্যাসিডগুলি প্রোটিন আকারে যা খাদ্য হজমে সহায়তা করে এবং মানব দেহ এই অ্যামিনো অ্যাসিডগুলি ব্যবহার করে খাদ্যগুলি ভেঙে প্রোটিন তৈরি করে।

অ্যালঝাইমার রোগের ঝুঁকিগুলি :
লাল বাঁধাকপি খাওয়া আপনার আলঝাইমার রোগ হওয়ার ঝুঁকি কমাতে বলা হয় এবং এটি ভিটামিন কে এর কারণেই পাওয়া যায়। ভিটামিন কে রক্ত জমাট বাঁধা এবং রক্ত পাতলা রোধ করতে সহায়তা করে। এটি সাধারণত তাদের জন্য দেওয়া হয় যারা ভিটামিন কে এর ঘাটতিতে ভুগছেন এবং যাদের হাড় দুর্বল তাদের জন্য। এটি সহজ, আপনার খালি আপনার ডায়েটে কিছু বাঁধাকপি যুক্ত করা দরকার এবং এটি আপনাকে ভাল করবে।

ছানি ছত্রাকের ঝুঁকিগুলি সমাধান করে:
বাঁধাকপিতে বিটা ক্যারোটিন রয়েছে যা চোখের ম্যাকুলার অবক্ষয়কে প্রতিরোধ করে এবং এটি আপনার ছানি হওয়ার সম্ভাবনাও হ্রাস করে। ছানি ছড়িয়ে যাওয়ার অন্যতম ঝুঁকি হ’ল একটি ঝাপসা এবং মেঘলা দৃষ্টি। চিত্রগুলি এমনভাবে উপস্থিত হতে পারে যেন আপনি কোনও নোংরা কাচের দিকে তাকিয়ে আছেন। আপনি এইরকম পরিস্থিতিতে থাকতে চাইবেন না এবং এইভাবে আপনাকে এটিকে বাঁধাকপি খাওয়ার জন্য বিন্দু তৈরি করতে হবে।

ওজন হ্রাস :
বাঁধাকপি একটি সুপার ফুড যা আপনার ওজন হ্রাস ডায়েটে যুক্ত করা দরকার কারণ এই শাকগুলি ক্যালরির পরিমাণ কম। আপনার যা করতে হবে তা হ’ল কিছু বাঁধাকপির স্যুপ তৈরি করা এবং দিনে অন্তত একবার এটি পান করা এবং আপনি নিজের ক্ষুধা বোধ করতে পারেন। বাঁধাকপি স্যুপ আপনার ক্ষুধা নিবারণ করবে এবং ফলস্বরূপ, আপনার ক্ষুধা উপশম করুন। এটি আপনাকে প্রায়শই ক্ষুধার্ত বোধ করবে না এবং ফলস্বরূপ, আপনি জাঙ্ক ফুড খাবেন। বাঁধাকপি ক্যালোরি কম থাকায় ওজন বাড়তে সহায়তা করবে না, পরিবর্তে এটি হজমে ভাল হ্রাসে সহায়তা করে।

হৃদয়ের পক্ষে ভাল:
বাঁধাকপি আপনার হৃদয়ের পক্ষে ভাল বলে এবং এটি আপনার নিয়মিত ডায়েটে অবশ্যই যুক্ত করা উচিত। কারণ এই শাকটি পটাসিয়াম এবং ক্যালসিয়ামের মতো খনিজগুলিতে রক্তে শর্করার মাত্রা নিয়ন্ত্রণের ক্ষমতা সহ লোড হয়। এছাড়াও, বাঁধাকপিতে কম পরিমাণে সোডিয়াম রয়েছে যা স্বাস্থ্যকর হার্ট রেট বজায় রাখার জন্য ভাল।

গর্ভাবস্থায় ভাল:
বাঁধাকপি ফলিক অ্যাসিড সমৃদ্ধ এবং পুষ্টিকর সুবিধা রয়েছে যা মায়েরা প্রত্যাশার জন্য হতে পারে। এটি ভ্রূণের সুস্বাস্থ্য এবং মায়ের দুধ উৎপাদনে সহায়তা করে। সুতরাং আপনি যদি একজন প্রত্যাশিত মা হন তবে আপনার নিয়মিত ডায়েটে কিছুটা বাঁধাকপি যুক্ত করা এবং স্বাস্থ্যকর জীবন যাপন করা দরকার।

ত্বকের জন্য বাঁধাকপি খাওয়ার উপকারিতা:

ঠিক আছে, যদি বাঁধাকপিটি বিভিন্নভাবে আপনার স্বাস্থ্যের জন্য উপকৃত হতে পারে তবে আপনার ত্বকের জন্য বাঁধাকপির কয়েকটি স্বাস্থ্য সুবিধা এখানে রইল। আপনার ত্বকের পুষ্টি যোগানো থেকে শুরু করে এটি চকচকে করতে, এই শাকটি সবার জন্যই সুপারিশ করা হয়।

চামড়া অবস্থা নিরাময় করতে পারেন:
সমস্ত শাক-সবজির ত্বকের নিরাময়ের বৈশিষ্ট্য রয়েছে। বাঁধাকপি ক্ষেত্রেও এটি সত্য। এই শাকটি বিভিন্ন ত্বকের অবস্থার জন্য যেমন সোরিয়াসিস, একজিমা, ব্রণ, পোকার কামড়, আলসার এবং বাত হিসাবে ব্যবহার করা হয়। আপনাকে যা করতে হবে তা হ’ল আপনার প্রতিদিনের ডায়েটে কিছু বাঁধাকপি যুক্ত করা এবং এটি আপনার পক্ষে ভাল করবে।

আপনি তরুণ দেখায়:
বাঁধাকপির এন্টি-এজিং বৈশিষ্ট্য রয়েছে যা এটি আপনার ত্বককে তরুণ দেখাবে। এর কারণ এটিতে ভিটামিন সি রয়েছে যা আপনার বার্ধক্যের প্রক্রিয়াটি ধীর করে দেয়। বাঁধাকপির রস সবচেয়ে ভাল পরামর্শ দেওয়া হয় কারণ এটির রান্না করা বাঁধাকপি খাওয়ার চেয়ে স্বাস্থ্য আপনার ত্বককে অনেক দ্রুত উপকৃত করে। এটিকে আরও সহজ করে তুলতে বাঁধাকপি আপনার ত্বকের কোষের মৃত্যুকে বিলম্বিত করে এবং আপনার ত্বককে অতিবেগুনী রশ্মি থেকে রক্ষা করে।

 

চুলের জন্য বাঁধাকপি খাওয়ার উপকারিতা:

বাঁধাকপি যদি আপনার সামগ্রিক স্বাস্থ্য এবং ত্বকের জন্য ভাল হয় তবে এটি আপনার চুলের জন্যও সমান উপকারী কারণ এটি চুলের বৃদ্ধিতে সহায়তা করতে এবং আপনার চুলে একটি রেশমি স্পর্শ দিতে পারে। এটি সালফার, ক্যালসিয়াম, ম্যাগনেসিয়াম এবং আয়রনের মতো পুষ্টিতে ভরা কারণ এটি। আপনার চুলের জন্য বাঁধাকপি খাওয়ার কিছু স্বাস্থ্য উপকারিতা এখানে দেওয়া হল।

চুল বৃদ্ধিতে:
বাঁধাকপিতে ভিটামিন এ রয়েছে যা একটি অ্যান্টিঅক্সিড্যান্ট যা আপনার চুলের বৃদ্ধি বৃদ্ধি করে। আপনার যা করতে হবে তা হ’ল কয়েকটি বাঁধাকপি সিদ্ধ করে আপনার মাথার ত্বকে কিছু লেবুর রস যুক্ত করুন এটি চুল বৃদ্ধিতে সহায়তা করবে। এটি দিয়ে আপনার স্ক্যাল্পটি আলতোভাবে ম্যাসাজ করুন এবং এটি 30 মিনিটের জন্য শুকিয়ে যাওয়ার অনুমতি দিন। এটি হয়ে গেলে আপনি শ্যাম্পু দিয়ে আলতো করে ধুয়ে ফেলতে পারেন। সেরা ফলাফল পেতে আপনার সপ্তাহে কমপক্ষে 2 বার এটি করা দরকার।

আপনার চুলকে মসৃণ চেহারা দেখায়:
এই স্বাস্থ্যকর শাকসব্জীটি খেলে আপনার চুল পুষ্ট হবে এবং এটিকে একটি রেশমী এবং জ্বলজ্বল আবেদন দেবে। আপনাকে যা করতে হবে তা হ’ল এটির কিছু রস আপনার মাথার ত্বকে এবং চুলে লাগান এবং আপনি পরিবর্তনগুলি দেখতে পাবেন। এক ঘন্টা পরে আপনি চুলে কিছু শ্যাম্পু লাগাতে পারেন এবং এটি আপনার চুলকে মসৃণ এবং সিল্কি দেখায়।

শুকনো চুল:
বাঁধাকপির নিয়মিত সেবন আপনার চুলকে নরম এবং চকচকে করে তুলতে সুবিধা করতে পারে। আপনার শুকনো চুল থাকলে এটি ভাল কাজ করে। সুতরাং আপনাকে যা করতে হবে তা হ’ল কেবল আপনার প্রতিদিনের ডায়েটে কিছু বাঁধাকপি যুক্ত করা এবং এটি আপনাকে ভাল করবে। আপনি যদি দ্রুত ফলাফলের সন্ধান করে থাকেন তবে আপনি বাঁধাকপির রসও পান করতে পারেন। যেহেতু গাজর এবং শসা আপনার চুলের জন্যও ভাল, আপনি 80 মিলি গাজর এবং শসার রস মিশ্রিত করতে পারেন 40 মিলি বাঁধাকপির রস এবং এটি পান করতে পারেন। এটি আপনাকে দ্রুত ফলাফল পেতে সহায়তা করবে।

Leave a Reply